প্রত্যেকদিন কফি আর মদ খেলেই নাকি বাড়বে আয়ু, বলছে সমীক্ষা

‘মরিতে চাহিনা আমি সুন্দর এ ভুবনে’… মরতে কেউই চাই না। কবিগুরুও হয়ত চাননি মরতে। কিন্তু মৃত্যু আমাদের জীবনের অনিবার্য সত্য। যা খণ্ডন করার ক্ষমতা কারও নেই। তবে চাইলে আপনি একটু বেশি দিনই বাঁচতে পারেন।

কিন্তু কী ভাবে? আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই বিষয়ে গবেষকরা কী বলছেন।

সম্প্রতি কার্লিফোনিয়ার ‘ইউসিআই মাইন্ডের’ একদল বিজ্ঞানী মানুষের গড় আয়ুর তুলনায় বেশীদিন বেঁচে থাকার নিদান হিসেবে আমাদের সামনে উপস্থাপন করেছেন, চাঞ্চল্যকর এক রিপোর্ট। যা শুনলে আপনার চক্ষুচড়ক গাছ হতে বাধ্য।

বেশীদিন বেঁচে থাকার মন্ত্র হিসেবে শশরীরচর্চা বা স্বাস্থ্য সম্মত জীবনাযাপন নয়, বরং ওই গবেষক দলটি জানাচ্ছেন, পৃথিবীর মায়া যদি চটজলদি কাটাতে না চান, তাহলে অবশ্যই প্রতিদিন পান করুন কফি অথবা মদ।

বেশীদিন বেঁচে থাকার এই অব্যর্থ ওষুধের কথা শুনলে হয়ত আপনার চোখ কপালে ওঠার যোগার। মনে হতেই পারে এটা আবার কেমন পরামর্শ?

যেখানে চিকিৎসক মহল বলছেন বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে- সঙ্গে চা-কফি অ্যালকোহল বর্জন করুন। মেনে চলুন স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নিয়মাবলী। সেখানে এমন অদ্ভুত বাণী শুনে হতবাক হওয়া ছাড়া উপায় আছে বৈকি?
যদিও, গবেষণার রিপোর্ট বলছে অন্যকথা। সুস্থ থাকতে প্রতিদিন পান করুন কফি, বিয়ার। তবে অবশ্যই দু কাপের বেশী নয়।

এই বিষয়ে কার্লিফোনিয়ার ওই গবেষক দলটি প্রায় ১হাজার ৬০০জন মানুষের উপর সমীক্ষা চালিয়েছিলেন। আর এই সমীক্ষা চলেছিলো প্রায় ছয় মাস ধরে।

সেইসময় তাঁদের সাইকোলজি এবং নিউরোলজির ওপর পরীক্ষা নিরিক্ষা চালানো হয়েছিলো। রেকর্ড করা হয়েছিলো তাঁদের মেডিকেল হিস্টোরি।

যেখানে পরীক্ষা শেষে উঠে এসেছে নয়া এই চমক।

প্রতিদিন গড়ে দুইবার মদ অথবা কফি পান করলে মৃত্যুর ঝুঁকি কমে প্রায় ১৮ শতাংশ। কফির মধ্যে থাকা ক্যাফিন আমাদের শারীরিক ধকল হ্রাস করতে সাহায্য করে। কাজকর্মের প্রতি আমাদের উদ্দিপ্ত করে তোলে। একই মদ বা সুরা জাতীয় পানীয় নানারকম রোগব্যাধি যথা হার্ট অ্যাটাক, ক্যানসার এবং নানাধরনের অসুখ থেকে মুক্তি দেয়।

ফলে বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, জীবনের গড় আয়ু বাড়াতে চাইলে সুরাপায়ী হোন। তবে অবশ্যই এর স্বাভাবিক মাত্রা বজায় রেখে। নচেৎ হিতে বিপরীত হতে কতক্ষন?

Post a Comment

0 Comments