বিনা পরীক্ষাতেই RTO থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন, জানুন কিভাবে? - WEBMULTICHANNEL

Header Ads

বিনা পরীক্ষাতেই RTO থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন, জানুন কিভাবে?

 এবার RTO তে কোনোরকম পরীক্ষা না দিয়েই হাতেনাতে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেয়ে যাবেন আপনি। কি? স্বপ্ন মনে হচ্ছে তো? কিন্তু এটাই সত্যি। এবার আর RTO অব্দি ঝুটঝামেলা নয়। তবে একটা ছোট্টো ট্যুইস্ট রয়েছে এখানে। এরজন্য আপনাকে অবশ্য‌ই কোনো সরকার স্বীকৃতি ড্রাইভিং সেন্টারে নিজের কোর্স কমপ্লিট করতে হবে। এবং সেই সেন্টারেই একটি টেস্ট ড্রাইভিং নেওয়া হবে। তাদের ফিডব্যাকের ভিত্তিতে আপনার হাতে আসবে RTO প্রদত্ত শখের ড্রাইভিং লাইসেন্স। 

                                                 


টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, "এই পুরো প্রক্রিয়াটি প্রযুক্তি-চালিত এবং কোন মানুষের হস্তক্ষেপ ছাড়াই উপস্থাপিত হবে। স্থান, ড্রাইভিং ট্র্যাক, আইটি এবং বায়োমেট্রিক সিস্টেমের মানদণ্ড পূরণ এবং নির্ধারিত পাঠ্যক্রম অনুসারে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী কেন্দ্রগুলিতে এই অনুমোদন দেওয়া হবে। কেন্দ্রটি শংসাপত্র জারি করার পরে এটি সংশ্লিষ্ট মোটরযান লাইসেন্স কর্মকর্তার কাছে পৌঁছে যাবে।"

তাদের সরকারী টুইটার হ্যান্ডেলে, সড়ক পরিবহন ও জনপথ মন্ত্রক (MRTH) স্বীকৃত ড্রাইভার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলির মূল বৈশিষ্ট্যগুলি উদ্ধৃত করা হয়েছে। এগুলি হল-

1) পরীক্ষার্থীদের উচ্চমানের প্রশিক্ষণের জন্য কেন্দ্রটি সিমুলেটর এবং ডেডিকেটেড ড্রাইভিং টেস্ট ট্র্যাক থাকতে হবে।

2) মোটরযান আইন, 1988 এর প্রয়োজনীয়তা অনুসারে প্রতিকার ও রিফ্রেশার কোর্সগুলি এই কেন্দ্রগুলিতে নেওয়া আবশ্যক।

3) এই কেন্দ্রগুলিতে সফলভাবে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদনের সময় ড্রাইভিং পরীক্ষার প্রয়োজনীয়তা থেকে অব্যাহতি পাবেন, যা বর্তমানে আঞ্চলিক পরিবহন অফিসে (RTO) নেওয়া হচ্ছে। এটি চালকদের যেমন স্বীকৃত ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলি থেকে প্রশিক্ষণ শেষ করে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে সহায়তা করবে।

4) এই কেন্দ্রগুলিকে শিল্প-নির্দিষ্ট বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়ারও অনুমতি রয়েছে।

MRTH তাদের অফিশিয়াল ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে জানিয়েছে, "দক্ষ চালকদের অভাব ভারতীয় রোডওয়ে সেক্টরের অন্যতম প্রধান সমস্যা। রাস্তা বিধিমালা সম্পর্কে জ্ঞান না থাকায় বিপুল সংখ্যক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।"

No comments

Theme images by 5ugarless. Powered by Blogger.